এবার হজে বাংলাদেশির সংখ্যা পাঁচজন!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, এটিভি সংবাদ

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের কারণে এ বছর খুব অল্প সংখ্যক সৌভাগ্যবান মানুষ হজ করার সুযোগ পেয়েছেন। শর্ত হিসেবে তাদেরকে সৌদি আরবের মধ্যে অবস্থান করতে হয়েছে। সৌদি আরবের নাগরিকদের বাদ দিলে ১৬০ দেশের কমবেশি ৭ হাজার মানুষ হজে অংশগ্রহণ করেছেন। জানা গেছে, এর মধ্যে বাংলাদেশের নাগরিক আছেন মাত্র ৫ জন।

হজের সুযোগ দিতে না পারলেও সারা বিশ্বের বাংলা ভাষাভাষী মানুষের জন্য সুসংবাদ দিয়েছে হজ পরিচালনা কর্তৃপক্ষ। এ বছর হজের খুতবা বাংলা ভাষায় সম্প্রচার করা হবে। জানা গেছে, গত বছর ৫টি ভাষায় এই খুতবার অনুবাদ প্রচারিত হয়েছিল। এ বছর আরো ৫টি ভাষা যোগ হলো, যার মধ্যে রয়েছে বাংলাও। অর্থাৎ চলতি বছর হজের খুতবা শোনা যাবে মোট ১০টি ভাষায়। প্রতি বছর আরবি জিলহজ মাসের ৯ তারিখ আরাফার ময়দানে হজের খুতবা অনুষ্ঠিত হয়।

বর্তমানে (বৃহস্পতিবার সকাল) মিনা থেকে হাজিরা আরাফাতের ময়দানে গিয়ে অবস্থান নিচ্ছেন। সেখানে তারা সারাদিন ইবাদত-বন্দেগিতে সময় অতিবাহিত করবেন। সূর্যাস্ত পর্যন্ত অবস্থান করবেন আরাফাতের ময়দানে।

বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো সৌদি আরবেও করোনার সংক্রমণ চলছে। ফলে অনেক ভেবে-চিন্তে এবার সীমিত পরিসরে হজ পালনের সিদ্ধান্ত হয়। এক্ষেত্রে কঠোরভাবে স্বাস্থ্যবিধি পালনের ওপর জোর দেওয়া হয়েছে। হজে অংশগ্রহণকারীদের ৭ দিনের আইসোলেশনে রাখা হয়েছিল। সেইসঙ্গে বিনা অনুমতিতে মক্কা ও এর আশপাশের এলাকায় প্রবেশের ওপর কড়া নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। এই নিয়মের লঙ্ঘন হলে জরিমানার বিধান রাখা হয়েছে।

image_print
SHARE