atv sangbad

Blog Post

atv sangbad > সারাদেশ > কিশোরীর হাত ও মুখে  গরম খুন্তির ছ্যাঁকা দিল সৎ মা

কিশোরীর হাত ও মুখে  গরম খুন্তির ছ্যাঁকা দিল সৎ মা

মাদারীপুর, এটিভি সংবাদ
মাদারীপুরের ডাসারে সৎ মায়ের দ্বারা নির্যাতনের শিকার হয়েছেন বিথী আক্তার নামে নবম শ্রেণির শিক্ষার্থী। এ ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। সোমবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) রাতে এ শিক্ষার্থীকে গরম খুন্তি দিয়ে শরীরের হাতে ও মুখে ছ্যাঁকা দেন সৎ মা স্নেহআরা বেগম।
জানা যায়, ডাসার উপজেলার আইসার গ্রামের মোল্লা বাড়ির দেলোয়ার মোল্লার প্রথম স্ত্রী ক্যানসারে আক্রান্ত হয়ে প্রায় একযুগ আগে মার যান। তার প্রথম স্ত্রীর সংসারে তিন পুত্র সন্তান ও দুই মেয়ে রেখে যান। সংসার দেখভাল ও সন্তানদের লালন-পালনের জন্য দ্বিতীয় বিয়ে করেন বরিশালের ধানডোবা গ্রামের স্নেহআরা বেগমকে। তিনি ছোট বিথীসহ বাকি সন্তানদের লালন-পালনের দায়িত্ব নেন।
স্থানীয়রা বলছেন, সৎ মা স্নেহআরা বেগম প্রায়ই শিশুদের সঙ্গে খারাপ আচরণ করতেন। এর আগেও একাধিকবার নির্যাতনের শিকায় হতে হয় তাদের। এবার গরম খুন্তির ছ্যাঁকা দিয়ে মুখের একাধিক স্থান ঝলসে দিয়েছেন।
জানা যায়, ঘটনাটি ধামাচাপা দিতে চেষ্টা চালাচ্ছে বিথীর সৎ মা ও বাবা। বুধবার (২১ ফেব্রুয়ারি) সরেজমিনে নির্যাতনের শিকায় এ শিক্ষার্থীর বাড়ি গেয়ে তাকে পাওয়া যায়নি। স্থানীয়রা জানায়, ঘটনার ধামাচাপা দিতে ওই শিক্ষার্থীকে চিকিৎসার কথা বলে অন্যত্র সরিয়ে নেওয়া হয়েছে।
শিক্ষার্থীর মামা জাহাঙ্গীর আলম জানান, আমার বোন ক্যানসারে আক্রান্ত হয়ে ১৫ বছর আগে ৩ ভাগিনা ও দুই ভাগনি রেখে মারা যান। সবার ছোট বিথী। তাকে ওর সৎ মা গরম খুন্তি দিয়ে শরীরে বিভিন্ন স্থানে ছ্যাঁকা দিয়ে ঝলসে দিয়েছে।
তিনি বলেন, বিথীর শরীরে ক্ষত সৃষ্টি হয়েছে। ঘটনার পরে বিথীকে নিয়ে মাদারীপুরের পেয়ারপুরে আত্মগোপনে চলে যায়। আমার বড় ভাগিনা খবর পেয়ে ওর সৎ মায়ের কাছ থেকে ভাগনিকে উদ্ধার করে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা নিয়ে গেছে।
এ ব্যাপারে ডাসার থানার অফিসার ইনচার্জ এস এম শফিকুল বলেন, পরিবারের কেউ এখন পর্যন্ত অভিযোগ নিয়ে আসেনি। লিখিত অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ব্রেকিং নিউজ :