পুলিশ কর্মকর্তাকে বাসা ছাড়তে নোটিশ, পরিবারকে হয়রানি!

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি, এটিভি সংবাদ

করোনাভাইরাসের আশঙ্কায় ঠাকুরগাঁওয়ে এক পুলিশ কর্মকর্তাকে ভাড়া বাসা ছাড়ার নোটিশ দিয়েছে বাড়িওয়ালা। এছাড়া বাসা ছাড়াতে বাধ্য করতে নানাভাবে হয়রানি করছে বলে অভিযোগ বাড়ির মালিক রতনের বিরুদ্ধে।

শনিবার ঠাকুরগাঁও সদর থানার ওসি (অপারেশন) নাজমুল হক এটিভি সংবাদ ডটকম’র কাছে এমন অভিযোগ করেন। পুলিশের পক্ষ থেকে জানা যায়, গেল জানুয়ারিতে ঠাকুরগাঁও জেলা শহরে বাসা ভাড়া নেন পুলিশ কর্মকর্তা নাজমুল হক। এরপর থেকে দুই সন্তান ও স্ত্রীসহ বসবাস করে আসছেন তিনি।

করোনাভাইরাস শুরু হলে ঘর ছেড়ে দেয়ার জন্য নানাভাবে হয়রানি করতে শুরু করে বাড়ির মালিক রতন। ওই বাসায় আরও দুই পুলিশ সদস্য পরিবারসহ ভাড়া থাকতেন। তাদেরকেও নানাভাবে হয়রানি করছে বাড়িওয়ালা।

পুলিশ কর্মকর্তা নাজমুল হক জানান, বাসা না ছাড়ার কারণে আমার অনুপস্থিতিতে পরিবারকে নানাভাবে হয়রানি করে যাচ্ছে বাড়িওয়ালা। করোনাভাইরাস থেকে মানুষদের জীবন বাঁচাতে আমরা যখন কাজ করছি, ঠিক তখনই বাড়ির মালিক রতনের এমন আচরণ আমাদেরকে কষ্ট দিচ্ছে।

এ বিষয়ে সদর থানার ওসি তানভিরুল ইসলাম জানান, কিছুদিন আগেও ওই বাড়ির মালিক রতন দুই পুলিশ সদস্য ও তাদের পরিবারের সদস্যদের ঘর ছাড়া করেছিল। বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাকে অবগত করা হয়েছে।

করোনাভাইরাসের ভয়াল থাবায় সারাদেশ আজ স্থমিত হয়ে পড়েছে। বর্তমান এই প্রেক্ষাপটে বাড়ির মালিক রতনের এ অমানবিক কর্মকাণ্ডের তীব্র নিন্দা ও সমালোচনা করেন, এটিভি সংবাদের সম্পাদক এস এম জামান।

image_print
SHARE