atv sangbad

Blog Post

atv sangbad > খেলাধুলা > বিশ্বকাপের আগে যুবাদেরকে ব্যাট এনে দিয়ে নিজ অভিজ্ঞতার কথা শোনালেন তামিম

বিশ্বকাপের আগে যুবাদেরকে ব্যাট এনে দিয়ে নিজ অভিজ্ঞতার কথা শোনালেন তামিম

স্পোর্টস রিপোর্টার: জাতীয় দলের ক্রিকেটাররা নিউজিল্যান্ড সফর শেষে যে যার মতো বিশ্রামে। কেউ কেউ নড়াইলে টাইগার সাবেক অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা কিংবা মাগুরায় বর্তমান অধিনায়ক সাকিব আল হাসানের পাশে। বড় ভাইদের নির্বাচনি কাজে ব্যস্ত সময় পার করছেন। তাই তাদের পদচারণ মিরপুর শের-ই-বাংলায় বর্তমানে নেই বললেই চলে।

তবে তারা না থাকলেও হোম অব ক্রিকেট বেশ ব্যস্ত। কারণ এখানে আসন্ন অনূর্ধ্ব ১৯ বিশ্বকাপ ক্রিকেট মাঠে গড়ানোর আগে শেষ বারের মতো নিজেদের প্রস্তুত করতে ব্যস্ত টাইগার যুবারা। আর সেখানেই গতকাল জুমার নামাজের আগে হাজির দেশ সেরা ওপেনার তামিম ইকবাল খান। এসেই আসন্ন টুর্নামেন্টের জন্য অনুপ্রেরণা ও শুভ কামনা দিলেন খেলোয়াড়দের। শুধু এটুকুতেই ক্ষান্ত হলেন না, সবাইকে উপহার দিলেন বিশ্বসেরা ব্যাট প্রস্তুত কোম্পানির ব্যাট।

গেল মাসে সংযুক্ত আরব আমিরাতে প্রথমবারের মতো দেশকে এশিয়া কাপ শিরোপা এনে দেওয়ার পর দক্ষিণ আফ্রিকায় অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া আসন্ন ক্রিকেট বিশ্বকাপ নিয়ে বেশ আত্মবিশ্বাসী রাব্বি-শিবলীরা। আগামী ১৯ জানুয়ারি মাঠে গড়াবে এই টুর্নামেন্টটি। এর আগে মিরপুরেই অনুশীলন করছে তাড়া। সেই অনুশীলনেই গতকাল হাজির হন টাইগার সাবেক ওয়ানডে অধিনায়ক তামিম ইকবাল। সেসময় যুবাদের জন্য সঙ্গে করে নিয়ে আসেন পাকিস্তানি ব্যাটিং কোম্পানি ‘সিএ’-এর ১৫টি ব্যাট।

অনেক তরুণ ক্রিকেটারই বাঁহাতি এই ওপেনারের কোম্পানির ব্যাট দিয়ে খেলতে চান। গত মাসে সংযুক্ত আরব আমিরাতে অনুষ্ঠিত হয়েছে যুব এশিয়া কাপ। সেই সময় দুই-তিন জন ক্রিকেটার ‘সিএ’ ব্যাট কেনার আগ্রহ প্রকাশ করেছিলেন। এমন আগ্রহের কথা তামিমের কাছে পৌঁছে দেন হান্নান সরকার। তামিমকে অবশ্য চার-পাঁচটি ব্যাটের কথা জানিয়েছিলেন যুব দলের এই নির্বাচক। তবে তামিম বোর্ডের সঙ্গে কথা বলে সবার জন্যই ব্যাটের ব্যবস্থা করে নিয়ে আসেন। এমনটি জানিয়েছেন যুব দলের নির্বাচক।

শুক্রবার গণমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে হান্নান বলেন, ‘এশিয়া কাপের আগে যখন আমরা ইন্ডিয়া গেলাম মূলত তখনই ক্রিকেটাররা ব্যাটের জন্য মরিয়া হয়ে ছিলেন। আমি তখন অনেক ক্রিকেটারের সঙ্গে যোগযোগ করি। আমরা যেহেতু ইন্ডিয়া আছি তো এসএস (ভারতীয় ব্যাট প্রস্তুতকারক কোম্পানি) কোম্পানি থেকে বলে সংগ্রহ করে দেওয়া যায় কি না। আসলে সেসময় সময় কম ছিল এবং আমরা এরকম একটা জায়গায় ছিলাম, ঐখান থেকে ঐ সুবিধাটা আমরা নিতে পারিনি। পরে এশিয়া কাপ চলাকালীন শিবলী আমার রুমে কথা বলে আমার সঙ্গে। সেসময় বলে স্যার এসএস তো পেলাম না, আপনি তামিম ভাইয়ের সঙ্গে একটু কথা বলে দেখেন সিএ টা সংগ্রহ করা যায় কি না।’

‘স্বাভাবিক ভাবেই আমি তামিমকে ফোন দেই, তামিম আমাকে বলে কয়টা ব্যাট লাগবে, তো আমি বলি তুমি তিনটা/চারটা ব্যাট দিয়ো, আমি যাদের দরকার মনে হয় তাদের দিব। পরে বলে আচ্ছা আমি চারটা ব্যাট পাঠিয়ে দিব আপনি দেশে আসেন, আপনি যাকে ইচ্ছা দিয়েন এটা সন্ধ্যায় কথা হয়েছিল। তো তার পরদিন সকালে আবার তামিম ফোন করে বলে হান্নান ভাই আমি পাপন ভাইয়ের সঙ্গে কথা বলেছি, সিওর সঙ্গেও কথা হয়েছে খেলোয়াড়দের ব্যাটের ব্যাপারে, তো পনেরোটা ব্যাটই দেওয়ার ব্যাপারে আমি তাদের সঙ্গে কথা বলেছি, তারা বলেছে এটা ম্যানেজ করে দিবেন।’

যুব দলের নির্বাচক আরো যোগ করেন। তবে এই প্রথম না, আগেও অনেক বার ক্রিকেটারদের নানা প্রয়োজনে পাশে দাঁড়াতে দেখা গিয়েছে তামিম ইকবালকে। সতীর্থ কিংবা বড় ভাই যেই পরিচয়েই হোক, দরকারে তাকে স্মরণ করলে হাজির হয়ে যান টাইগার এই ওপেনার। আর বয়সভিত্তিক ক্রিকেটারদের পাশে যেভাবে এবার ব্যাট নিয়ে হাজির হলেন তা তো এই যুবা ক্রিকেটাররা বেশ ভালোভাবেই মনে রাখবেন। তামিমের উপহার দেওয়া এই ব্যাটগুলোর ক্যামন দাম হতে পারে নির্বাচক হান্নানের কাছে জানতে চাওয়া হলে তিনি বলেন, ‘তামিমকে আমি মজা করে জিজ্ঞেস করেছিলাম দাম কত, পরে আবার নিজেই বলেছি থাক দাম বলা দরকার নেই। কারণ দামটা জানা জরুরি না, তামিমের ব্যাট সম্পর্কে আমরা সবাই জানি, খেলোয়াড়রাও জানে। তামিমের ব্যাট বলেই কথা সিএ থেকে নিজেই অর্ডার করে নিজেই নিয়ে এসেছেন। তো এটার দামটা ঐখানেই মূল্যায়ণ হয়ে যায়। সে যেটা করেছে সেটার জন্য ঐ দামের বিকল্প চিন্তা করা যায় না, এটা টাকা দিয়ে মেটানো যায় না।’

তামিমের ব্যাট পেয়ে খুশি যুবদলের সেরা ব্যাটার আশিকুর রহমান শিবলীও। এ প্রসঙ্গে গণমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে তিনি বলেন, ‘তামিম ভাই আমাদের আশ্বাস দিয়েছিলেন যে, আমাদের ব্যাট দিবে তো আমরা পেয়েছি খুব ভালো লাগছে।’ কতগুলো ব্যাট দেওয়া হয়েছে জিজ্ঞেস করা হলে জানান, দলের প্রতিটি খেলোয়াড়কেই ব্যাট দেওয়া হয়েছে। এসময় আসন্ন বিশ্বকাপ নিয়ে দলের সবাইকে অনুপ্রেরণা দিয়েছেন তামিম বলে জানান এই ব্যাটার। বলেন, ‘ভাই (তামিম) আমাদের অনেক অনুপ্রেরণা দিল ভালো ভালো কথা বলল যে, বিশ্বকাপে কী কী সিচুয়েশন আসতে পারে। আমাদের সঙ্গে তার অভিজ্ঞতা শেয়ার করেছেন।’

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ব্রেকিং নিউজ :