করোনাভাইরাস নিয়ে মুখ খুলে চাকরি হারালেন মার্কিন সেই ক্যাপ্টেন

ডেস্ক রিপোর্ট:

মার্কিন বিমানবাহী রণতরী ইউএসএস থিওডোর রুজভেল্টের ক্যাপ্টেন ব্রেট ক্রোজিয়ারকে বরখাস্ত করা হয়েছে। কয়েকদিন আগে তিনি তার জাহাজে করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব ছড়িয়ে পড়ার কারণে জাহাজ থেকে নৌ সেনাদের সরিয়ে নেয়ার আহ্বান জানিয়েছিলেন।

 

সে সময় তিনি বলেছিলেন, “বিমানবাহী রণতরী থেকে সেনাদেরকে সরিয়ে না নিলে এসব সেনা মারা যাবে। আমরা যেহেতু এখন যুদ্ধ পরিস্থিতির মধ্যে নেই সেজন্য তাদেরকে বিনা কারণে মৃত্যুর মুখে ঠেলে দেয়ার কোনো যৌক্তিকতা নেই।

 

এ অবস্থায় ৫,০০০ সেনাকে জাহাজ থেকে সরিয়ে নেয়া উচিত। ”

ক্রোজিয়ার জানিয়েছিলেন, এরইমধ্যে বেশ কয়েকজন সেনার দেহে করোনাভাইরাসের অস্তিত্ব মিলেছে এবং এই ভাইরাস দ্রুতগতিতে জাহাজে ছড়িয়ে পড়তে পারে। তার এই বক্তব্য গণমাধ্যমে প্রচারিত হয়।

 

তিনি একটি চিঠিতে প্রশান্ত মহাসাগরীয় কমান্ডকে জানিয়েছিলেন যে, থিওডোর রুজভেল্ট জাহাজে পর্যাপ্ত পরিমাণে কোয়ারেন্টিন এবং আইসোলেশনের সুবিধাও নেই; বর্তমান যে ব্যবস্থা আছে তাতে করোনাভাইরাস নির্মূল করা সম্ভব হবে না।

 

এই খবর প্রকাশের পর বৃহস্পতিবার মার্কিন নৌবাহিনী বিষয়ক ভারপ্রাপ্ত মন্ত্রী থমাস মোডলি ঘোষণা করেছেন যে, ক্যাপ্টেন ব্রেট ক্রোজিয়ারকে দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে। পেন্টাগনের এক সংবাদ ব্রিফিংয়ে তিনি এ কথা জানান।

 

মোডলি বলেন, কমান্ডারকে এই গোপন চিঠি ফাঁস করার জন্য বরখাস্ত করা হয় নি বরং তাকে বরখাস্ত করা হয়েছে দায়িত্ব পালনের ব্যাপারে তার আস্থার ঘাটতি জন্য। সূত্র: বিবিসি, সিএনএন, এনবিসি