সংগীতজ্ঞ আলাউদ্দিন আলীর মৃত্যু: রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীসহ বিভিন্ন মহলের শোক

নিজস্ব প্রতিবেদক
গীতিকবি, সুরস্রষ্টা ও সংগীত পরিচালক আলাউদ্দিন আলীর মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ, সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ এবং বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলামসহ বিভিন্ন মহলের ব্যক্তিবর্গ। তার মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়লে শোকের ছায়া নেমে আসে দেশের সংগীত ও চলচ্চিত্র অঙ্গনে।
এক শোক বার্তায় রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ বলেন, সংগীতজ্ঞ আলাউদ্দিন আলীর মৃত্যু দেশের সাংস্কৃতিক অঙ্গনে এক অপূরণীয় ক্ষতি।
রাষ্ট্রপতি মরহুমের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করেন।
এদিকে, কিংবদন্তি সুরস্রষ্টা ও সংগীত পরিচালক আলাউদ্দিন আলী’র মৃত্যুতে গভীর শোক ও দু:খ প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
শোকবার্তায় শেখ হাসিনা দেশের সংগীত জগতে আলাউদ্দিন আলীর অবদান শ্রদ্ধার সঙ্গে স্মরণ করেন।
প্রধানমন্ত্রী মরহুমের আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন এবং তার শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বরেণ্য সংগীত ব্যক্তিত্ব আলাউদ্দিন আলীর মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করে বলেছেন, আলাউদ্দিন আলী বেঁচে থাকবেন তার সংগীত কর্মে।

রোববার (০৯ আগস্ট) পাঠানো শোকবার্তায় আলাউদ্দিন আলীর দীর্ঘ চার দশকের সংগীত জীবনের কথা স্মরণ করে তথ্যমন্ত্রী বলেন, একইসঙ্গে সুরকার, সংগীত পরিচালক, বেহালাবাদক ও গীতিকার আলাউদ্দিন আলীর সুরে গান করে বাংলাদেশ, ভারত ও পাকিস্তানের বহু স্বনামধন্য শিল্পী নিজেদের সমৃদ্ধ করেছেন।

তিনি বলেন, জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত আলাউদ্দিন আলীর নিজস্ব সুরে গাঁথা বাংলা গান চলচ্চিত্রজগতে বিপুল জনপ্রিয়তা তৈরি করেছে। উপমহাদেশের অনন্য সুরকার আলাউদ্দিন আলী বেঁচে থাকবেন তার সংগীত কর্মে।
তথ্যমন্ত্রী প্রয়াত আলাউদ্দিন আলীর বিদেহী আত্মার শান্তি কামনা করেন এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।
বিশিষ্ট সুরকার ও সংগীত পরিচালক আলাউদ্দিন আলীর মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ।
রোববার (৯ আগস্ট) প্রতিমন্ত্রী এক শোকবার্তায় মরহুমের বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন এবং তার শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করেন।

শোকবার্তায় সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী বলেন, আটবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারজয়ী সংগীত পরিচালক আলাউদ্দিন আলী ছিলেন বাংলা চলচ্চিত্রের সুরের জগতে এক উজ্জ্বল নক্ষত্র। দীর্ঘ সংগীত জীবনে তিনি প্রায় তিন শতাধিক চলচ্চিত্রের গানে সুর দিয়েছেন। অসময়ে তার চলে যাওয়া দেশের সংগীতাঙ্গনের জন্য এক অপূরণীয় ক্ষতি।

বাংলা চলচ্চিত্রে এ কালজয়ী সুরকারের অবদান দেশ ও জাতি বিশেষ করে চলচ্চিত্রপ্রেমী ও সংগীত বোদ্ধারা দীর্ঘকাল স্মরণে রাখবেন বলে উল্লেখ করেন প্রতিমন্ত্রী।

অপরদিকে, প্রখ্যাত সুরকার আলাউদ্দিন আলীর মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

রোববার (৯ আগস্ট) এক শোকবার্তায় বিএনপি মহাসচিব বলেন, অসংখ্য পুরস্কার জয়ী বরেণ্য সুরকার, গীতিকার, বাদ্যযন্ত্র শিল্পী ও সংগীত পরিচালক আলাউদ্দিন আলীর মৃত্যুতে সংগীতজগতে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

তিনি ছিলেন সংগীতভুবনের এক উজ্জ্বল নক্ষত্র।

মির্জা ফখরুল বলেন, তিনি কয়েক দশক ধরে সংগীতজগতে অসংখ্য শ্রোতাপ্রিয় গান সৃষ্টি করেছিলেন। ধ্রুপদী, আধুনিক, দেশাত্মবোধক ও লোকজসহ বিভিন্ন ধারার লেখা গানে সুরারোপ করে বিমুগ্ধ করেছিলেন দেশের মানুষকে। তাঁর লেখা ও সুরারোপিত অসংখ্য জনপ্রিয় গান এখনও মানুষের মুখে মুখে উচ্চারিত হয়। তাঁর সুরের গানগুলি ভক্তদের হৃদয়ে চিরদিন অম্লান হয়ে থাকবে। মরণব্যাধী ক্যান্সারের সঙ্গে লড়াই করে অবশেষে তিনি ইহলোক থেকে প্রস্থান করলেন। দেশবাসী সবসময় এই বরেণ্য সংগীতব্যক্তির জন্য গর্বিত থাকবে। তাঁর মৃত্যুতে বাংলাদেশের সাংস্কৃতিক অঙ্গনে এক বিরাট শূণ্যতার সৃষ্টি হলো।
এছাড়া এক শোকবার্তায় বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য- গাজী মাজহারুল আনোয়ার ও বিএনপি জাতীয় নির্বাহী কমিটির সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক -আশরাফুজ্জামান উজ্জ্বল সুরকার আলাউদ্দিন আলীর মৃত্যুতে গভীর শোক ও দু:খ প্রকাশ করে বলেন, বাংলাদেশের সাংস্কৃতিক অঙ্গনে আলাউদ্দিন আলী ছিলেন একজন অগ্রগণ্য সংগীত সাধক, যিনি সংগীতের নানা শাখায় যে কৃতিত্ব দেখিয়েছেন তা দেশবাসী কখনোই ভুলবেনা।

নেতৃদ্বয় বলেন, আলাউদ্দিন আলীর মৃত্যুতে দেশ এক গর্বিত সন্তানকে হারালো। তাঁরা লোকান্তরিত আলাউদ্দিন আলীর আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন এবং পরিবার-পরিজনসহ নিকটজনদের সমবেদনা জ্ঞাপন করেন।

আলাউদ্দিনের মৃত্যুতে কন্ঠি শিল্পী রুনা লায়লা বলেছেন, অকালে চলে গেছেন সুরকার, সংগীত পরিচালক, বেহালাবাদক ও গীতিকার আলাউদ্দিন আলী। তার মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়লে শোকের ছায়া নেমে আসে দেশের সংগীত ও চলচ্চিত্র অঙ্গনে। অনেকে শোক প্রকাশ করেছেন।

আলাউদ্দিন আলীর মৃত্যুতে ফেসবুকে শোক প্রকাশ করেছেন কিংবদন্তি কণ্ঠশিল্পী রুনা লায়লা। এই সুরস্রষ্টা তার সুন্দর ও প্রাণ ভরানোর সুর দিয়ে তিনি বেঁচে থাকবেন বলেও মন্তব্য করেছেন তিনি।

রুনা লায়লা লিখেছেন, ‘আরেকজন গুণী সংগীত পরিচালক আলাউদ্দিন আলী স্বর্গের পথে যাত্রা করলেন। তার চলে যাওয়া আমাদের সংগীতাঙ্গনের জন্য অনেক বড় ক্ষতি। তার তৈরি সুন্দর এবং প্রাণ ভরানোর সুর দিয়ে তিনি আমাদের মাঝে বেঁচে থাকবেন আজীবন। তার সঙ্গে অসংখ্যবার কাজ করার সৌভাগ্য হয়েছে আমার। সৃষ্টিকর্তার কাছে তার বিদেহী আত্মার শান্তি কামনা করি এবং তাকে জান্নাতের সবচেয়ে সেরা স্থান দান করুক সেই প্রার্থনা করি।
রোববার (০৯ আগস্ট) রাজধানীর মহাখালীর ইউনিভার্সেল মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে বিকেল ৫টা ৫০মিনিটে সুরস্রষ্টা আলাউদ্দিন আলী শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। এর আগে শনিবার (০৮ আগস্ট) হাসপাতালটিতে তাকে ভর্তি করা হয়। সেখানে তাকে লাইফ সাপোর্টে রাখা হয়েছিল। গুণী এই সুরকারের জন্ম ১৯৫২ সালের ২৪ ডিসেম্বর মুন্সিগঞ্জের টঙ্গিবাড়ী উপজেলার বাঁশবাড়ি গ্রামে। তাঁর বাবা ওস্তাদ জাদব আলী। মায়ের নাম জোহরা খাতুন।