বাগমারায় মাটিরবাড়ি সংলগ্ন পুকুর খনন বন্ধ করার দাবি জানিয়ে প্রশাসন দপ্তরে অভিযোগ

এস এম ডাবলু, রাজশাহী প্রতিনিধি, এটিভি সংবাদ 

রাজশাহী বাগমারায় গোবিন্দপাড়া ইউনিয়নের পাশুড়িয়া গ্রামে মাটিরবাড়ি সংলগ্ন ভিটামাটি ও বাঁশঝাড় কেটে পুকুর খননের প্রস্তুতির অভিযোগ পাওয়া গেছে। উপজেলার বিভিন্ন প্রশাসন দপ্তরে বাবলু মন্ডল বাদি হয়ে মো: জয়নাল মন্ডলকে বিবাদী করে একটি অভিযোগ দায়ের করেন।

অভিযোগ সুত্রে হাটগাঙ্গোপাড়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের অফিসার ইনচার্জ মো: রফিকুল ইসলামসহ সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। সংবাদ পেয়ে সরজমিনে গিয়ে জানা যায়, বাবলু মন্ডল ঐ গ্রামের হাফেজ মন্ডলের ছেলে। তফসীল অনুযায়ী ১৪৮ নং খতিয়ানে ১০৫৪ দাগে ২১ শতক জমির উপর মায়ের দানকৃত সম্পত্তির উপর ভিত্তি করে, বাবলু ঐ দাগের উত্তর পার্শ্বে মাটির বাড়ি নির্মান করে বসবাস করে আসিতেছে।

জানা যায়, বাবলু একজন ভ্যানচালক যার সংসারে একমাত্র আয়ের উৎস পা চালিত ভ্যান। বাবলু অতি দারিদ্রতার মধ্য দিয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছেন। পরিবারে তার স্ত্রীসহ তিনটি কন্যা সন্তান আছে এর মধ্যে দু’টি কন্যা সন্তানকে ক্ষুদ্র ঋনের মাধ্যমে বিয়ে দিয়েছেন। বাবলু জানায়, কে বা কারা তাদেরকে উচ্ছেদ করার ঘৃন্য ষড়যন্ত্র করছেন। কিন্তু বাবলুর অন্যত্র জায়গায় বাড়ি করার মত কোন জায়গা জমি নাই বলে ভুক্তভোগী গনমাধ্যমকে জানিয়েছেন।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, বাবলু মন্ডলের উত্তর পার্শ্বে বিবাদী মো: জয়নাল ভিটা জমিতে আমগাছ ও বাঁশঝাড় কেটে সেখানে পুকুর খননের প্রস্তুতি চালাচ্ছে। বিবাদী জয়নাল এ কাজের ব্যাপারে বাদি বাবলুর সাথে কোনরুপ মতামত বা আলোচনা করে নাই। উক্ত স্থানে পুকুর খনন করা হলে বাদির মাটির তৈরি বাড়ির চরম ক্ষতির কারন হবে।

বাদি বলেন, যেই পাশে পুকুর খনন হবে সেই পাশেই নিজেদের শোয়ার ঘর আছে যাতে ধসে পড়ে যে কোন সময় দূর্ঘটনা ঘটতে পারে। পুকুরটি যাতে খনন করতে না পারে সে জন্য প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করে বিবেচনার অনুরোধ জানান।

এ সকল বিষয়ে হাটগাঙ্গোপাড়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের অফিসার ইনচার্জ মো: রফিকুল ইসলাম বলেন, অভিযোগ অনুযায়ী তদন্ত হয়েছে। কোন প্রকার অনিয়ম বা অন্যায় করে সেখানে পুকুর খনন করা হলে প্রচলিত আইনে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।