নাসিরের বিরুদ্ধে আইনবহির্ভূত বিয়ের অভিযোগ তদন্ত করবে পিবিআই

নিউজ ডেস্ক, এটিভি সংবাদ 

আইনবহির্ভূত বিয়ে করার অভিযোগে ক্রিকেটার নাসির হোসেন ও তাঁর স্ত্রী তামিমা সুলতানার বিরুদ্ধে করা মামলাটি পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনকে (পিবিআই) তদন্ত করার নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। আজ ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট (সিএমএম) আদালতের ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ জসিম এই আদেশ দেন। তথ্য নিশ্চিত করেছেন ওই আদালতের বেঞ্চ সহকারী হেলাল উদ্দিন। আগামী ৩০ মার্চ তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেওয়ার নির্দেশ দেন আদালত।

ক্রিকেটার নাসির ও তামিমার বিরুদ্ধে মামলা করেন তামিমার আগের স্বামী রাকিব হাসান। রাকিব হাসানের আইনজীবী ইশরাত হাসান মিডিয়াকে বলেন, আসামি তামিমা সুলতানার স্বামী হলেন রাকিব হাসান। বিয়ের তথ্য গোপন করে তামিমা নাসির হোসেনকে বিয়ে করেন, যা দণ্ডনীয় অপরাধ। তাই দু’জনের বিরুদ্ধে দণ্ডবিধির ৪৯৪, ৪৯৭ ও ৪৯৮ ও ৫০০ ধারায় মামলা হয়েছে।

সম্প্রতি ক্রিকেটার নাসির হোসেন ও তামিমা সুলতানার বিয়ে হয়। এরপর নতুন করে বিতর্ক ওঠে এই ক্রিকেটারকে ঘিরে। তামিমা সুলতানা তাঁর আগের স্বামীকে তালাক না দিয়ে নাসিরকে বিয়ে করেছেন। রাজধানীর উত্তরা পশ্চিম থানায় এমন অভিযোগ তুলে সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন তামিমার আগের স্বামী রাকিব হাসান। জিডিতে তামিমার সঙ্গে তাঁর দীর্ঘ সম্পর্কের কথা উল্লেখ করেন রাকিব। জিডিতে তিনি দাবি করেছেন, তামিমার সঙ্গে তাঁর (রাকিবের) ১১ বছরের সংসার। দু’জনের ৮ বছরের একটি মেয়েও আছে। কিন্তু সব ফেলে নাসিরকে বিয়ে করায় থানায় অভিযোগ করেছেন তিনি।

১৪ ফেব্রুয়ারি বিশ্ব ভালোবাসা দিবসে রাজধানীর উত্তরার একটি রেস্তোরাঁয় নাসির ও তামিমার বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন হয়। নাসিরের স্ত্রী পেশায় কেবিন ক্রু, কাজ করেন বিদেশি একটি এয়ারলাইনসে। বিয়ের অনুষ্ঠানে পরিবারের লোকজন এবং ঘনিষ্ঠ আত্মীয়স্বজন উপস্থিত ছিলেন। নাসিরের বিয়ের অনুষ্ঠানে অনেক ক্রিকেটারও উপস্থিত ছিলেন। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে নাসিরের বিয়ের ছবি ছড়িয়ে পড়ে।

দীর্ঘদিন ধরেই জাতীয় দলে অনিয়মিত নাসির। ফিটনেসে উত্তীর্ণ হতে না পেরে ঘরোয়া লিগ বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপে সুযোগ পাননি তিনি। তবে সদ্য শেষ হওয়া আবুধাবি টি-টেন লিগের ফ্র্যাঞ্চাইজি পুনে ডেভিলসের হয়ে খেলেছেন এই অলরাউন্ডার, দলটির অধিনায়ক ছিলেন নাসির।