বাগমারার হাটমাধনগর ভূমি অফিসের তহসীলদার সাজ্জাদের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ

এস এম ডাবলু, রাজশাহী প্রতিনিধি, এটিভি সংবাদ 

রাজশাহী বাগমারা নরদাশ ইউনিয়নের হাটমাধনগর ভূমি অফিসের তফসিলদার মো: সাজ্জাদ হোসেনের বিরুদ্ধে দুর্নীতি ও অনিয়মের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

জানা যায়, তহসিলদার সাজ্জাদ হোসেন গত ০৪-০২-২০২০ইং তারিখে হাটমাধনগর ভূমি অফিসে যোগদান করেন। যোগদানের পর থেকেই এলাকার নিম্নআয়ের শ্রেনির মানুষদের ভুলভাল বুঝিয়ে লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন বলে ভুক্তভোগিরা জানিয়েছেন।

সরকারি নিয়মকানুন কে তোয়াক্কা না করে বিভিন্ন দালালদের ব্যবহার করে নিজের ইচ্ছামত খোরাক মেটাতো এই সাজ্জাদ হোসেন। অভিযোগসূত্রে জানা যায়, এলাকার জনসাধারন জমি জমার কাগজপত্রের বিভিন্ন প্রয়োজনে তহসিলদারের স্বরণাপন্ন হলে প্রথমেই টাকার অংক কষিয়ে বিভিন্ন কায়দায় ফাঁদে ফেলে প্রতারনা করত তহসিলদার।

এমনকি জমি জমার খাজনা, খারিজ এর কথা বলে নিয়মবহির্ভূত অতিরিক্ত টাকা আদায় করে দিনের পর দিন হয়রানি করত পক্ষান্তরে কোন কাজের সন্ধান পাওয়া যেতনা। কিছু সংখ্যক দালাল লোকের মোটা অর্থের বিনিময়ে গোপনে যোগসাজশে কাজ করে নিত ফলে তহসিলদারের অত্যাচারে অতিষ্ঠ এলাকার জনসাধারন। তারা বলেন “আমরা হয়রানির ভয়ে তহসিলদারের বিরুদ্ধে কোন কথা বলতে পারিনা।”

বিষয়টি ধীরে ধীরে প্রকোট আকার ধারন করছে এবং এলাকার জনসাধারনের সঙ্গে সংঘর্ষের আশংকা রয়েছে। তাই প্রতারক তহসীলদার জরুরীভাবে বদলী করে অত্র এলাকার জনসাধারনের সুষ্ঠ, সঠিক কাজের একজন সৎ তহশীলদার দেওয়ার জন্য প্রশাসন দপ্তরে আবেদন করেছেন অত্র ইউনিয়নের ভুক্তভোগি জনসাধারন।

এ সকল বিষয়ে বাগমারা সহকারি কমিশনার (ভূমি) নির্বাহী মেজিস্ট্রেট মো: মাহমুদুল হাসান বলেন, হাটমাধনগর তহসীলদারের বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ এর ভিত্তিতে সুষ্ঠ তদন্ত হয়েছে। সুবিচারের জন্য তদন্ত প্রতিবেদন ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ রাজশাহী জেলা প্রশাসক কার্যালয় বরাবর প্রেরন করা হয়েছে।