কুড়িগ্রামে কলেজ শিক্ষকের হাত-পা কেটে দিলো দুর্বৃত্তরা

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি, এটিভি সংবাদ 

কুড়িগ্রামে কলেজ শিক্ষক ও জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সিনিয়র সহ-সভাপতি আতাউর রহমান মিন্টুকে কুপিয়ে এক হাত ও এক পা প্রায় বিচ্ছিন্ন করে ফেলেছে সন্ত্রাসীরা। গুরুত্বর আহত অবস্থায় তাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (১৬ মার্চ) দুপুর ২টার দিকে রাজারহাট উপজেলার ছিনাই ইউনিয়নের পালপাড়া এলাকায় এক সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা ঘটে। এ ঘটনার সাথে জড়িতদের গ্রেপ্তারের দাবিতে কুড়িগ্রাম-রংপুর মহা সড়কের কাঠালবাড়ী ও জেলা শহরের শহীদ মিনার এলাকায় সড়ক অবরোধ করেছে স্থানীয়রা।

আতাউর রহমান মিন্টু ফুলবাড়ী উপজেলার বড়ভিটা ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আলতাফ হোসেনের ২য় পুত্র।

জানা যায়, দুপুর ২টার দিকে আতাউর রহমান মিন্টু ঐ এলাকায় আসলে একদল সন্ত্রাসী ধারালো অস্ত্র নিয়ে তার উপর হামলা চালায়। এসময় ধারালো অস্ত্রের কোপে আতাউর রহমান মিন্টুর এক হাত ও এক পা প্রায় বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে। এসময় স্থানীয়রা এগিয়ে এলে সন্ত্রাসীরা বীরদর্পে সেখান থেকে চলে যায়। পরে তাকে উদ্ধার করে রংপুর মেডিকেলে পাঠানো হয়।

রাজারহাট থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রাজু সরকার জানান, আহত মিন্টুকে গুরুত্বর অবস্থায় রংপুরে নিয়ে যাওয়া হয়েছে, এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত মামলা হয়নি।