ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় হেফাজতের কোনো নেতাকর্মী তাণ্ডব চালায়নি

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি, এটিভি সংবাদ 

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় হেফাজতে ইসলামের কোনো নেতাকর্মী তাণ্ডব চালায়নি বলে দাবি করেছেন সংগঠনটির কেন্দ্রীয় নায়েবে আমীর মাওলানা সাজিদুর রহমান। হরতাল চলাকালে ভাঙচুর ও হত্যাকাণ্ডেরও নিন্দা জানান তিনি।

সোমবার মাওলানা সাজিদুর রহমানের নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধি দল হামলায় ক্ষতিগ্রস্থ ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাব ও ক্লাবের সভাপতি আহত রিয়াজ উদ্দিন জামিসহ আহত সাংবাদিকদের সমবেদনা জানাতে সোমবার দুপুরে প্রেসক্লাবে আসেন।

এ সময় তারা হেফাজতের ডাকা হরতাল চলাকালে হামলা ভাঙচুরের নিন্দা জানানোর পাশাপাশি হত্যাকাণ্ডেরও নিন্দা জানান। তারা ভিডিও ফুটেজ দেখে এসব ভাঙচুরের সঙ্গে জড়িতদের শনাক্তের পাশাপাশি হত্যাকাণ্ডের উস্কানীদাতাদেরও চিহ্নিত করে আইনের আওতায় আনার দাবি জানান।

সেই সঙ্গে কোনো নিরাপরাধ লোক যেন হয়রানির শিকার না হয়, সেজন্য তিনি সংশ্লিষ্টদের লক্ষ্য রাখার আহ্বান জানান হেফাজত নেতারা।

মাওলানা সাজিদুল রহমান বলেন, হরতালের দিন আমাদের হেফাজত ইসলামের নেতারা শুধু মাদ্রাসার সামনে অবস্থান নিচ্ছিল। ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় এসব হামলা, ভাঙচুর, অগ্নিসংযোগ কখনও হেফাজতে ইসলামের কোনো নেতাকর্মী এসব তাণ্ডব চালায়নি। আমরা ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগের প্রতিবাদ জানাই। যারা এইসব ন্যাক্কারজনক কাজ করেছে তাদেরকে ভিডিও ফুটেজ দেখে শনাক্ত করে শাস্তির দাবি জানাচ্ছি।

পরিদর্শনকালে তার সঙ্গে ছিলেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া জামিয়া ইসলামিয়া ইউনুসিয়া মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মুফতি মাওলানা মোবারক উল্লাহ, আলী আজম, নোমান হাবিবী, বোরহান উদ্দিন কাশেমী, এনামুল হাসান, তানভীর আহমেদ, মো. জাকারিয়াসহ স্থানীয় নেতৃবৃন্দ।