মগবাজারে বিস্ফোরণের ঘটনাটি তদন্ত কমিটি গঠন করে খতিয়ে দেখা হবে: আইজিপি

আঁখি আক্তার, এটিভি সংবাদ 

রাজধানীর মগবাজারে বিস্ফোরণের ঘটনা বোম্ব এক্সপ্লোশন ইউনিট নিয়ে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করে খতিয়ে দেখা হবে বলে জানিয়েছেন ইন্সপেক্টর জেনারেল অব পুলিশ, বাংলাদেশ  ড. বেনজীর আহমেদ, বিপিএম(বার)।

সোমবার (২৮ জুন) বেলা ১১টায় মগবাজার বিস্ফোরণের ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন আইজিপি।

বেনজীর আহমেদ বলেন, গতকাল মগবাজারে দূর্ঘটনায় সাধারন পথচারী, ওয়ার্কার ও দোকানের ক্রেতাসহ পঞ্চাশের অধিক মানুষ আহত হয়েছে। এটি একটি মর্মান্তিক দূর্ঘটনা। এ দূর্ঘটনা  শিশুসহ ছয়জনের  প্রানহানি ঘটেছে। আপনারা যদি খেয়াল করেন তাহলে দেখবেন এ ধরনের দুর্ঘটনা একাধিকবার হয়েছে। একটি শনির আখড়ায়, আরেকটি নারায়ণগঞ্জ মসজিদের মধ্যে হয়েছিল।

পুলিশ প্রধান বলেন, এ ঘটনায় ইতোমধ্যে ফায়ার সার্ভিস তদন্ত কমিটি করেছে। যদিও পুলিশের পক্ষ থেকেও একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হবে। বোম্ব ও এক্সপ্লোশন ইউনিট নিয়ে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করে ঘটনাটি খতিয়ে দেখা হবে। তদন্ত শেষে ফায়ার সার্ভিস ও আমাদের তদন্ত কমিটি ঘটনার কারণ সম্পর্কে সরকারকে জানাবে ।

আইজিপি বলেন, এখন পর্যন্ত গ্লাসের ভাঙ্গা  টুকরা ছাড়া অন্যকিছু আমরা খুঁজে পাইনি। বিস্ফোরণ ভবনের ভেতরে এখনও মিথেন গ্যাসের গন্ধ রয়েছে। ফায়ার সার্ভিস তাদের গ্যাস ডিটেক্টর নিয়ে আসবে এবং তারপরে দেখা যাবে ভেতরে গ্যাসের অস্তিত্ব আছে কি-না।’

আপাতত অন্য কারণে শঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই। তবে আমরা সবগুলো বিষয় মাথায় রেখে তদন্ত করছি। এই পর্যায়ে কোনো কমেন্ট না করে এক্সপার্ট অপিনিয়ন আসুক এরপর বোঝা যাবে কী ঘটেছিল। এই পর্যন্ত ধৈর্য্য ধরে অপেক্ষা করি।

করোনা সংক্রমণ বিষয়ে আইজিপি বলেন, আমরা করোনার দ্বিতীয় ওয়েভ মোকাবেলা করছি। এটি বর্তমানে আক্রান্তের শীর্ষে রয়েছে। সবাইকে মাস্ক পড়তে হবে মাস্ক পরিধানের কোন বিকল্প নাই। আমাদের সতর্ক থাকতে হবে এবং বিনা প্রয়োজনে কেউ ঘর থেকে বের হবেননা। জরুরী প্রয়োজনে বের হলেও সেটা হবে সীমিত সময়ের জন্য। দেশবাসীর কাছে আমাদের আবারো অনুরোধ বিনা প্রয়োজনে কেউ বের হবেন না। বের হলে অবশ্যই মাস্ক পরিধান করবেন এবং মাঠ পর্যায়ে পুলিশের কাজে সহায়তা করবেন।

সাংবাদিকের এক প্রশ্নের জবাবে আইজিপি আরও  বলেন, ‘গ্যাসের সিলিন্ডার যদি পুরোপুরি মেইনটেইন না করা হয় সেটিই হয়ে যায় বোম্ব। কোনো ইলেকট্রনিক বাতি জ্বালানোর চেষ্টা করলে যদি স্পার্ক সৃষ্টি হয় এ সময় গ্যাস সিলিন্ডারের মেইনটেন্যান্স খারাপ থাকলে মুহূর্তের মধ্যে দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। এগুলো সতর্কতার বিষয় রয়েছে। তবে আমরা সবগুলো বিষয় মাথায় রেখে তদন্ত করছি। এ ধরনের দুর্ঘটনার যেন পুনরাবৃত্তি না ঘটে।

এ সময় আইজিপি মহোদয়ের সাথে  ডিএমপি কমিশনার মোহাঃ শফিকুল ইসলাম বিপিএম (বার), পুলিশের বিশেষ শাখার (এসবি) প্রধান মোঃ মনিরুল ইসলাম বিপিএম (বার), পিপিএম (বার), পুলিশ হেডকোয়ার্টার্সের অতিরিক্ত আইজিপি এম খুরশীদ হোসেন বিপিএম (বার), পিপিএমসহ পুলিশের  উর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।