টাঙ্গাইলের গোপালপুরে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ, ধর্ষক জেলহাজতে!

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি, এটিভি সংবাদ 

পঞ্চম শ্রেণির এক স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে গোপালপুর থানা পুলিশ বুধবার (৩০ জুন) সকালে শামীম হোসেন নামক এক যুবককে গ্রেফতার করে জেলহাজতে পাঠিয়েছে। শামীম উপজেলার ধোপাকান্দি ইউনিয়নের কৃষ্ণপট্টি গ্রামের দুলাল হোসেনের পুত্র।

গোপালপুর থানার সাব-ইন্সপেক্টর এবং মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা শফিকুল ইসলাম জানান, স্থানীয় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের এক ছাত্রীকে শামীম বেশ কয়েকদিন ধরে উত্যক্ত করে আসছিলো। উত্যক্তের ঘটনায় অভিভাবকদের নিকট অভিযোগ দিয়েও প্রতিকার পায়নি ছাত্রীর বাবা। গত সোমবার সন্ধ্যায় শিশুটি পিচুরিয়া গ্রামের নানা বাড়ি থেকে বাবার বাড়ি কৃষ্ণপট্টিতে ফেরার পথে জোরপূর্বক একটি নির্মাণাধীন বাড়িতে নিয়ে ধর্ষণ করে।

পিচুরিয়া গ্রামের মাতব্বর আব্দুস সামাদ জানান, ধর্ষকের পরিবার প্রভাবশালী এবং ধর্ষিতার বাবা দিন মজুর হওয়ায় স্থানীয়ভাবে বিষয়টি মীমাংসার নামে কালক্ষেপণ করেন প্রভাবশালীরা।

মামলার বাদি জহিরুল ইসলাম অভিযোগ করেন, থানায় মামলা দিতে নানাভাবে বাধার সৃষ্টি করে ধর্ষকের পরিবার। পরে পুলিশ খবর দিলে গত মঙ্গলবার গভীর রাতে থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে অপহরণপূর্বক ধর্ষণ ও ভয়ভীতি প্রদানের অভিযোগে মামলা দায়ের হয়।

গোপালপুর থানার ওসি মোশারফ হোসেন জানান, মামলার দায়ের হওয়ার ঘণ্টা চারেক পর পুলিশ অভিযান চালিয়ে ধর্ষক শামীমকে গ্রেফতার করে। বুধবার আদালতে চালান দিলে তাকে জেল হাজতে পাঠানো হয়। ধর্ষিতার মেডিক্যাল পরীক্ষা করানোরও ব্যবস্থা করা হয়েছে।