শেরপুরে বিপদসীমার ওপরে ভোগাই নদীর পানি!

শেরপুর প্রতিনিধি, এটিভি সংবাদ 

শেরপুরে এক দিনের নিরিখে ১০ বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ ২২৪ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত গতকাল নথিবদ্ধ হয়েছে। বর্ষণ ও উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলের কারণে বিপদসীমার ওপর দিয়ে বইছে ভোগাই, চেল্লাখালী, সোমেশ্বরী ও মহারশি নদীর পানি। ঝিনাইগাতী বাজার ও উপজেলা পরিষদ চত্বরেও পানি উঠেছে। আর নেত্রকোনায় সোমেশ্বরীতে পানিবৃদ্ধির পাশাপাশি দেখা দিয়েছে নদীভাঙন।

শেরপুর প্রতিনিধি জানান, গতকাল সকাল ৯টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় সেখানে ২২৪ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত নথিবদ্ধ হয়েছে, যা গত ১০ বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ বলে জানাচ্ছেন পানি উন্নয়ন বোর্ডের পানি পরিমাপক (গেজ রিডার) মোখলেছুর রহমান। ভারি বর্ষণ ও উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে নালিতাবাড়ীর চেল্লাখালী ও ভোগাই নদীর পানি বিপৎসীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

পানির তোড়ে ভোগাই নদীর শিমুলতলী বাঁধ ভেঙে পৌর শহরে মধ্যবাজার, জেলখানা রোড, উত্তর গড়কান্দা, নালিতাবাড়ী ইউনিয়নসহ বিভিন্ন এলাকায় অনেক বাড়িঘরেও পানি প্রবেশ করেছে। সকালে চেল্লাখালী নদীর পানি গাজীরখামার-নালিতাবাড়ী সড়কের বালুঘাটা এলাকায় সড়ক উপচে প্রবাহিত হতে থাকে। ওই দুই নদীর পানি পরিমাপকরা জানিয়েছেন, দুপুর ১২টায় নালিতাবাড়ী পয়েন্টে চেল্লাখালী নদী বিপৎসীমার ১.৭৩ মিটার ওপর দিয়ে ২৭.৪৭ মিটার উচ্চতায় এবং ভোগাই নদী ৬২ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে ১৭.৯৯ মিটার উচ্চতায় প্রবাহিত হচ্ছিল।