বরিশালে পুলিশ ও বাস শ্রমিকদের সংঘর্ষে আহত ৩

বরিশাল প্রতিনিধি, এটিভি সংবাদ 

বরিশালে শ্রমিকদের বাস ধর্মঘটে ব্যবহৃত ব্যারিকেট সরানো নিয়ে পুলিশ ও শ্রমিকদের মধ্যে সংঘর্ষ ও ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। শুক্রবার (১৬ জুলাই) দুপুর ১টার দিকে বরিশাল কেন্দ্রীয় নথুল্লাবাদ বাস টার্মিনালের সামনে এ ঘটনায় পুলিশ সদস্যসহ তিনজন আহত হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্র জানায়, বাস শ্রমিকদের ধর্মঘট প্রত্যাহারের শেষ পর্যায়ে সিভিল পোশাকে থাকা বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের এয়ারপোর্ট থানার কর্মরত কনস্টেবল ফারুক ধর্মঘটে ব্যবহৃত ব্যারিকেট সরানোর চেষ্টা করে। এ নিয়ে শ্রমিকদের সাথে ফারুকসহ পুলিশের প্রথমে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। এক পর্যায়ে পুলিশ সদস্য ফারুক ও বাস শ্রমিক জুয়েল ও রাহাত আহত হলে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যায়। অপর শ্রমিকরা জড়ো হয়ে পুলিশের উপর হামলা চালানোর চেষ্টা করলে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এতে প্রায় এক ঘণ্টা সে এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করে। পরে শ্রমিক নেতারা এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে।

বাস শ্রমিক জুয়েল জানান, ধর্মঘট চলাকালে টি শার্ট পরা একজন ব্যারিকেট উঠানোর চেষ্টা ও তাতে বাঁধা দেওয়ার চেষ্টা করে। সে যে পুলিশ তা তো বোঝার কোনো উপায় নেই।

পুলিশ কনস্টেবল মো. ফারুক জানান, তিনি খাবার নিয়ে থানার দিকে যাওয়ার পথে কিছু লোকজন তার উপর চড়াও হয়। এরপর তাকে মারধর করা হয়। বরিশাল জেলা বাস মালিক গ্রুপের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কিশোর কুমার দে জানান, ভুল বোঝাবুঝি হতে পারে। বিস্তারিত জেনে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

প্রসঙ্গত, আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে বরিশাল জেলা বাস, মিনিবাস, কোচ ও মাইক্রোবাস শ্রমিক ইউনিয়নের পৃথক দুই কমিটির নেতাদের সংঘর্ষে প্রায়ই ঘটছে এ ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা। বৃহস্পতিবারের সংঘর্ষের ঘটনায় এক পক্ষের দায়েরকৃত মামলায় কাউকে গ্রেফতার না করায় শুক্রবার সকাল ১০টা থেকে বাস চলাচল বন্ধ করে দেয়া হয়। এতে করে এ দু’টার্মিনালে কয়েক হাজার যাত্রীর পোহাতে হচ্ছে অবর্ণনীয় দুর্ভোগ।