সর্বাত্মক লকডাউনে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে কড়াকড়ি চেকপোস্ট

হুমায়ুন কবির (ঢাকা), এটিভি সংবাদ 

সরকার ঘোষিত দুই সপ্তাহের সর্বাত্মক লকডাউনের প্রথম দিনে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের চেকপোস্টেগুলোতে কড়াকড়ি ভূমিকায় দেখা গেছে প্রশাসনকে। রাজধানীর উত্তরার আব্দুল্লাহপুর, হাউসবিল্ডিং, আজমপুর (উত্তরা পূর্ব থানা) ও বিমানবন্দর এলাকায়  সকাল থেকে পুলিশ, ম্যাজিস্ট্রেটসহ প্রশাসনের কড়া অবস্থান লক্ষ্য করা গেছে।

আব্দুল্লাহপুর মোড় এবং উত্তরা পূর্ব থানার সামনে পুলিশের চেকপোস্ট বসানো হয়েছে। সার্জেন্ট নাজমুল এটিভি সংবাদকে বলেন, সরকারের নির্দেশনা মেনেই কাজ করা হচ্ছে। অন্যায়ভাবে কাউকে ছাড় দেয়া হচ্ছে না। তদন্ত সাপেক্ষে প্রতিটি গাড়ি ও প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে বলেও জানান তিনি। ঢাকায় প্রবেশ ও ঢাকা থেকে ঢাকা-ময়মনসিংহ ও ঢাকা-আশুলিয়া মহাসড়কের প্রবেশে যানবাহন ও পথচারীদের তল্লাশি করছে পুলিশ।

উত্তরা পূর্ব জোন ট্রাফিক বিভাগের সিনিয়র সহকারী পুলিশ কমিশনার (ট্রাফিক) রফিকুল ইসলাম ও ট্রাফিক ইন্সেপেক্টর (টিআই) সাজ্জাদ হোসেন মিডিয়াকে  জানান, ভোর ৬টা থেকে আমরা কঠোর অবস্থান নিয়ে আছি।  ভোর থেকে বেলা ১১টা পর্যন্ত বিনা কারণে ঘর থেকে বের হওয়ায় ২০টি যানবাহনের বিরুদ্ধে নিয়মিত আইনে মামলা ও ২০টি যানবাহন রেকার বিল (জরিমানা) করা হয়েছে।

সরেজমিনে দেখা যায়, দূর-দুরান্ত থেকে ঈদ ফেরত সাধারণ মানুষ পণ্যবাহী পরিবহনে প্রবেশ করছে ঢাকায়। তাদের মধ্যে স্বাস্থ্যবিধির বালাই নাই। মিনি ট্র‍্যাকে করে মাস্ক ছাড়া গাদাগাদি করে বসে গ্রাম থেকে ঢাকায় প্রবেশ করছেন মানুষ ।

উত্তরা আজমপুরে ঢাকা জেলা প্রশাসনের মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করছেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শাহরিয়ার রহমান। এ সময় সরকারি নির্দেশনা অমান্য করায় ৩৪টি মামলা  ও ৩৫ হাজার টাকা জরিমানা আদায়  করা হয়।

সরকার ঘোষিত দুই সপ্তাহের সর্বাত্বক লকডাউনের আজ প্রথম দিনে ঢাকা জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এবং উত্তরা জোনের প্রতিটি থানা প্রশাসনের কর্মকাণ্ডের ভূয়সী প্রশংসা করেন, এটিভি সংবাদের সম্পাদক এস এম জামান।