দেশে ফিরে সাকিব আল হাসান যা বললেন

ক্রীড়া ডেস্ক, এটিভি সংবাদ 

সাকিব আল হাসান দীর্ঘসময় দেশের বাইরে ছিলেন। দেশে ফিরেছেন আজ। নাটকীয় পালাবদলে মোহামেডানের সাকিব এবার খেলবেন লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জের হয়ে। লিগে খেলতে দেশে চলেও এসেছেন তিনি।  ঢাকায় ফিরে তিনি বললেন, হঠাৎ করেই তার এমন সিদ্ধান্ত।

মোহামেডান সাকিবকে ঘটা করে দলে নিলেও তাদের হয়ে খেলতে পারেননি একটি ম্যাচও। বাজে পারফরম্যান্সে ঐতিহ্যবাহী দলটি সুপার লিগের আগেই ছিটকে পড়লে লিগে সাকিবের খেলার সম্ভাবনাও একরকম শেষ হয়ে যায়।

কিন্তু মঙ্গলবার মোহামেডান ক্লাব থেকে হঠাৎ জানানো হয়, লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জে খেলতে সাকিবকে ছাড়পত্র দিয়েছে তারা।  মোহামেডানের যে ক্রিকেটাররা এবার একটি ম্যাচেও তাদের হয়ে মাঠে নামেননি, সেই ক্রিকেটারদের অন্য ক্লাবে খেলার অনুমতি দেওয়া হচ্ছে আগে থেকেই। জাতীয় দলের হয়ে দক্ষিণ আফ্রিকা সফর থেকে ফিরে মুশফিকুর রহিম ও মেহেদী হাসান মিরাজ যেমন মোহামেডান ছেড়ে নাম লিখিয়েছেন শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাবে।

সাকিবের এ দলবদল তবু আরও বেশি চমকপ্রদ তার সাম্প্রতিক নানা বাস্তবতার কারণে। দেশে ফিরে বুধবার সকালে বিমানবন্দরে তিনি নিজেই শোনালেন পেছনের প্রেক্ষাপট।

তিনি বলেন, একদম হঠাৎ করেই সিদ্ধান্ত… মানে এক ঘণ্টার মধ্যে সিদ্ধান্তটি নেওয়া। ভাবলাম, যেহেতু একটা সুযোগ আছে খেলার, সামনে শ্রীলংকা সিরিজটাও আছে, তো এখন যদি কয়েকটা ম্যাচ খেলতে পারি, আমার জন্য প্রস্তুতি ভালো হবে। যেহেতু বেশ অনেক দিনের গ্যাপ একটা হয়ে গেল, প্রায় এক মাসের মতো হয়ে গেল যে ক্রিকেট খেলি না। যদি এই চারটা ম্যাচ খেলতে পারি, খেলার মধ্যে আসার একটা সুযোগ হলো। সে জন্যই সুযোগটি নেওয়া।

দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলতে আগামী ৮ মে ঢাকায় আসছে শ্রীলংকা। গত কয়েক বছরে নানা টেস্ট সিরিজে তাকে পাওয়া না যাওয়ায় এ সিরিজে তার খেলা নিয়েও সংশয় ছিল অনেকের। তবে তার নিজের মনে কোনো সংশয় ছিল না বলেই জানালেন সাকিব।

তিনি বলেন, এটায় সন্দেহের কোনো ব্যাপার ছিল বলে আমার মনে হয় না। যদি কোনো ইমার্জেন্সি থাকত, অবশ্যই সেটি অন্য জিনিস। তবে হ্যাঁ, অবশ্যই খেলব।

তার পরিবারের বেশ কজন সদস্য হাসপাতালে ছিল বলেই দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে দেশে ফিরেছিলেন তিনি। এর মধ্যেই মারা গেছেন তার শ্বাশুড়ি, অন্যরা সুস্থ হয়ে উঠেছেন। সাকিব বললেন, এখন তিনি ক্রিকেটে মন দিতে চান।

এখন অবশ্যই ভালো অনুভব করছি। মনোযোগটা এখন ক্রিকেটে রাখতে চাচ্ছি। চেষ্টা থাকবে সামনে যত ম্যাচ আছে, সবই যেন খেলতে পারি বলে তিনি যোগ করেন।