ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন এখন স্বয়ংসম্পূর্ণ : মেয়র তাপস

ওয়াহিদ আব্দুল্লাহ রাজিব, এটিভি সংবাদ 

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস দাবি করেছেন, বিগত সময়ের তুলনায় ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন এখন স্বয়ংসম্পূর্ণ।

প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা অনুযায়ী করপোরেশন নিজ পায়ে দাঁড়িয়েছে। কয়েকটি কারণে এই অসাধ্য সাধন সম্ভব হয়েছে। ঢাকাবাসী শুধু আমাদের ভোট দিয়ে জয়যুক্ত করেননি, আমাদের ওপর পরিপূর্ণ আস্থাও রেখেছেন। ঢাকাবাসী বিশ্বাস করে, ‘উন্নত ঢাকা’ গড়তে আমরা সক্ষম। দুর্নীতির বিরুদ্ধে আমাদের ‘শূন্য সহনশীলতা’ নীতি অব্যাহত রয়েছে বিধায় দুর্নীতি কমেছে, ফলে আয় বেড়েছে।

এলাকায় উল্লেখযোগ্য হারে হয়রানি কমেছে এবং সুশাসন নিশ্চিত হয়েছে। ফলশ্রুতিতে ঢাকাবাসীর আস্থা বেড়েছে এবং কর পরিশোধ করার আগ্রহও বেড়েছে। ব্যয়ের ক্ষেত্রে পূর্বেকার যে কোনো সময়ের চাইতে জবাবদিহিতা বেড়েছে এবং অপচয় রোধ হয়েছে। বৃহস্পতিবার নগর ভবনের মেয়র হানিফ অডিটোরিয়ামে বাজেট ঘোষণা পরবর্তী সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

২০২২-২৩ অর্থবছরে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) ৬ হাজার ৭৪১ কোটি ২৮ লাখ টাকার বাজেট ঘোষণা করেন মেয়র শেখ ফজলে নূর তাপস। এর আগে গত ২৬ জুলাই নগর ভবনের মেয়র হানিফ অডিটোরিয়ামে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের দ্বিতীয় পরিষদের পঞ্চদশ করপোরেশন সভায় সর্বসম্মতভাবে এ বাজেট অনুমোদন দেয়া হয়। পাশাপাশি ২০২১-২২ অর্থবছরের সংশোধিত বাজেটও অনুমোদন দেয়া হয় সেই সভায়। দক্ষিণ সিটির ২০২১-২২ অর্থবছরের সংশোধিত বাজেট ছিল ১ হাজার ৯২৩ কোটি টাকা। মেয়র পদে দায়িত্ব নেয়ার পর থেকে গত দুই অর্থবছরের বাজেট ঘোষণা করেছেন তাপস। এবার তৃতীয় বাজেট ঘোষণা করলেন।

ksrm

২০২২-২৩ অর্থবছরের বাজেটে আয় অংশের প্রারম্ভিক স্থিতি ধরা হয়েছে ৫৯৩ কোটি ৬৯ লাখ টাকা, রাজস্ব আয় ১২০৮ কোটি ৭০ লাখ, অন্যান্য আয় ৫৭ কোটি ৮০ লাখ, সরকার থেকে ও বিশেষ বরাদ্দ ৬৫ কোটি এবং মোট সরকারি ও বৈদেশিক উৎস থেকে আয় ধরা হয়েছে ৪৮১৬ কোটি ৯ লাখ টাকা। জানা গেছে, গত করপোরেশন সভায় ২০২১-২২ অর্থবছরের সংশোধিত বাজেট ১ হাজার ৯২৩ কোটি টাকা অনুমোদন দেয়া হয়েছে। অথচ ২০২১-২২ অর্থবছরে বাজেট ঘোষণা করা হয়েছিল ৬ হাজার ৭৩১ কোটি ৫২ লাখ টাকা।

এ ছাড়া ২০২০-২১ অর্থবছরে ৬ হাজার ১১৯ কোটি ৫৬ লাখ টাকা বাজেট ঘোষণা করা হয়েছিল। এরই ধারাবাহিকতায় ২০২২-২৩ অর্থবছরে ৬ হাজার ৭৪১ কোটি ২৮ লাখ টাকার বাজেট ঘোষণা করলো সংস্থাটি। আগামী অর্থবছরে রাজস্ব আদায়ে হোল্ডিং ট্যাক্স আদায়ের দিকে মনোযোগ দেবে জানিয়ে মেয়র শেখ ফজলে নূর তাপস বলেন, শত প্রতিকূলতার মাঝেও আমরা ২০২০-২১ ও ২০২১-২২ অর্থবছরের বাজেট বাস্তবায়নের মাধ্যমে ‘উন্নত ঢাকা গড়ার ভিত’ রচনা মজবুত করতে সক্ষম হয়েছি এবং তারই ধারাবাহিকতায় আমরা নতুন আরেকটি ধাপে পদার্পণ করতে চলেছি।

মেয়র বলেন, ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন ২০২০-২১ আর্থিক বছরে ৭০৩ কোটি ৩১ লাখ টাকা রাজস্ব আহরণ করেছে। বিগত অর্থবছরে আমরা রাজস্ব আদায়ে পূর্বেকার সেই মাইলফলক অতিক্রম করে নতুন ইতিহাস গড়তে সমর্থ হয়েছি। ২০২১-২২ অর্থবছরে আমরা করপোরেশনের ইতিহাসে সর্বোচ্চ ৮৭৯ কোটি ৬৫ লাখ টাকা রাজস্ব আদায় করেছি।

২০২২-২৩ অর্থবছরের বাজেট ঘোষণা অনুষ্ঠানে মেয়র বলেন, আমি নির্বাচনকালীন কোনো কর বৃদ্ধি না করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলাম। সেই প্রতিশ্রুতি অক্ষরে অক্ষরে রক্ষা করেছি। আমরা কোনো কর বৃদ্ধি করিনি। বরং আয়ের খাত বৃদ্ধি, কর ফাঁকি রোধ করেছি। মেয়র বলেন, গত অর্থবছরে বাণিজ্য অনুমতি বাবদ রাজস্ব আহরণ হয়েছে ৭৫ কোটি ৩৪ লাখ টাকা। ২০২০-২১ ও ২০১৯-২০ অর্থবছরে বাণিজ্য অনুমতি খাতে যথাক্রমে আয় হয়েছে ৭২ কোটি ৬৭ লাখ ও ৫৫ কোটি টাকা।

২০২১-২২ অর্থবছরে পূর্বেকার অর্থবছরের চাইতে এ খাতে আয় বেড়েছে প্রায় ৩ কোটি টাকা এবং বিগত ২ বছরে এ খাতে প্রবৃদ্ধি হয়েছে প্রায় ৩৭ শতাংশ। এ সময় উপস্থিত ছিলেন করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ফরিদ আহাম্মদ, প্যানেল মেয়র মো. শহিদ উল্লাহ মিনু, অর্থ ও সংস্থাপন বিষয়ক স্থায়ী কমিটির সভাপতি মোহাম্মদ সেলিম  প্রমুখ।