অন্যায়ের প্রতিবাদ করায় কাউন্সিলর কর্তৃক হামলার শিকার

সৈকত মনি, এটিভি সংবাদ 

টাঙ্গাইলের গোপালপুর-ভুয়াপুরের ১৭ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর আতিকুর রহমান মোর্শেদের বিরুদ্ধে ভূমি দখলের অভিযোগ করে সংবাদ সম্মেলন করেছিলেন মৌসুমী মাহমুদা নামে এক স্থানীয় বাসিন্দা। এর জেরে কাউন্সিলর মোর্শেদের সন্ত্রাস বাহিনীর হাতে বারবার হামলার শিকার হয়েছেন বলে অভিযোগ করেছেন মৌসুমী।

রোববার (২ অক্টোবর) ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সাগর-রুনী হলে এক সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করেন তিনি।

ksrm

মৌসুমী বলেন, মোর্শেদের নামে আমি ২০২০ সালে একটি চাঁদাবাজির মামলা করি। যার চার্জশিট দাখিল হওয়ায় মামলার চার্জ গঠন করার জন্য এ বছর ২০ সেপ্টেম্বর টাঙ্গাইল সদর কোর্ট আদেশ দেন। এ আদেশের পরপরই তারা ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে। সন্ত্রাসীরা আদালত থেকেই আমাদের পিছু নেয় এবং টাঙ্গাইল স্টেডিয়ামের পাশের পুকুরপাড় রোডে আমাদের রিকশা আটকায় ও পাঁচটি মোটরসাইকেলে ১৪ থেকে ১৫ জন সদস্যের একটি সন্ত্রাসী কিশোর গ্যাং ধারালো অস্ত্রসহ আমাদের ওপর হামলা চালায়।

তিনি বলেন, ২০২১ সালের ১৯ আগস্ট টাঙ্গাইলের সন্ত্রাসী-চাঁদাবাজ মোর্শেদকে দুটি বিদেশি আগ্নেয়াস্ত্র, দুটি ম্যাগজিন ও কয়েক রাউন্ড গুলিসহ একজন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের উপস্থিতিতে গ্রেফতার করে পুলিশ। এর পরিপ্রেক্ষিতে গত ১৯ আগস্ট থেকে সন্ত্রাসী মোর্শেদ জেলে অবস্থান করলেও তার পালিত সন্ত্রাসী কিশোর গ্যাং সদস্যরা তার হুকুমে সন্ত্রাসী কার্যকলাপ চালিয়ে আসছে।

মৌসুমী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দৃষ্টি আকর্ষণ করে আতিকুর রহমান মোর্শেদের অত্যাচারের প্রতিকার দাবি করেন।