atv sangbad

Blog Post

atv sangbad > সারাদেশ > বুটেক্সের হলে বিদ্যুৎ ও ইন্টারনেট সেবা বর্ধিতকরণে স্মারকলিপি

বুটেক্সের হলে বিদ্যুৎ ও ইন্টারনেট সেবা বর্ধিতকরণে স্মারকলিপি

বুটেক্স, এটিভি সংবাদ 
বাংলাদেশ টেক্সটাইল বিশ্ববিদ্যালয়-এর তিনটি আবাসিক হল: জি এম এ জি ওসমানী হল, সৈয়দ নজরুল ইসলাম হল ও শেখ হাসিনা হলে ওয়াইফাই ও ডাবল ফেজের বিদ্যুৎ সংযোগ সুবিধা নেই। এ বিষয়ে জরুরি পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য সাধারন শিক্ষার্থীদের পক্ষে বুটেক্স সাংবাদিক সমিতি হল প্রভোস্ট বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করে।
বুটেক্স প্রতিষ্ঠার একযুগ পেরুলেও আবাসিক হলে এখন পর্যন্ত ওয়াইফাই সংযোগ দেওয়া হয়নি। বর্তমান যুগ তথ্য প্রযুক্তির যুগ। এই যুগে হলে ওয়াইফাই ব্যবস্থা না থাকা সত্যি বিস্ময়কর। এতে শিক্ষার্থীরা নানা ক্ষেত্রে পিছিয়ে পড়ছে। হলে ওয়াইফাই না থাকায় শিক্ষার্থীরা আধুনিক বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে চলতে পারছেনা। অনেক সময় দেশের নানা পরিস্থিতিতে অনলাইনে ক্লাস হয়। অনেকের পক্ষেই ইন্টারনেট কিনে অনলাইনে ক্লাস করা কষ্টকর। হলে আরো এক সমস্যার অন্যতম লোডশেডিং। গ্রীষ্মকালে এই লোডশেডিং এর হার অধিক পরিমাণে বেড়ে যায়। এই লোডশেডিং মোকাবেলায় হলে নেই কোনো বিদ্যুতের বিকল্প ব্যবস্থা । অনেক সময় পরীক্ষার আগেও হলে বিদ্যুৎ থাকে না। এতে করে শিক্ষার্থীদের পড়ালেখার মারাত্মক ক্ষতি হয় ।
এমতাবস্থায় শিক্ষার্থীদের পড়াশোনা নির্বিঘ্নে চালিয়ে নেওয়ার জন্য স্মারকলিপি তে দুইটি দাবী উত্থাপন করা হয়, সম্পূর্ণ হলে ওয়াইফাইয়ের ব্যবস্থা করা ও সম্পূর্ণ হলে বিদ্যুতের একাধিক সংযোগের ব্যবস্থা গ্রহণ করা।
স্মারকলিপি প্রদানকালে হল প্রভোস্ট ড. মো. সাঈদুজ্জামান খুব দ্রুত ইন্টারনেট সেবার বিষয়টি সমাধান করার আশ্বাস দেন এবং চলতি সপ্তাহে ই কাজ শুরু করার কথা বলেন। এছাড়া দুই ফেজের বৈদ্যুতিক সংযোগ এর ব্যাপারে জিজ্ঞেস করলে তিনি বলেন বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন ও তিনি ব্যাক্তিগত ভাবে এ ব্যাপারে অবগত আছেন এবং চেষ্টা করছেন বিষয়টি সমাধান করার।
এ সময় সাংবাদিক সমিতির সভাপতি ফরমান হোসাইন বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের হলে ওয়াইফাই সুবিধা সাধারণ শিক্ষার্থীদের মৌলিক অধিকার। এর আগে উদ্যোগ নেওয়া হলেও বিভিন্ন বাধার কারণে তা সম্ভব হয়নি। আমরা আশা করবো হল প্রশাসন এ ব্যাপারে দ্রুত পদক্ষেপ গ্রহণ করবেন। বিদ্যুতের দুই ফেইজের সুবিধা আগে থাকলেও বেশ কয়েকবছর ধরে শিক্ষার্থীরা বঞ্চিত হচ্ছে। এসব সমস্যা নিরসনে প্রশাসনের দ্রুত পদক্ষেপ আশা করছি।
সাংবাদিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের হলে লোডশেডিং হওয়া ও ইন্টারনেট সুবিধা না থাকাটা খুবই দু:খজনক। সবচেয়ে বড় ব্যাপার হল সরকার সব বিশ্ববিদ্যালয়ে বিনামূল্যে ওয়াইফাই সেবা চালু করেছে, অথচ বুটেক্সের হল ও শিক্ষক কোয়ার্টার গুলোতে এই সুবিধা পৌছায়নি। এরই প্রেক্ষিতে সাধারন শিক্ষার্থী ও শিক্ষক-কর্মকর্তাদের পক্ষ থেকে বুটেক্স সাংবাদিক সমিতি হল প্রভোস্টদের কাছে স্মারকলিপি দেয়।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ব্রেকিং নিউজ :